আসন্ন বানিজ্য মেলায় ৩০ দিনে ৩০ হাজার বেতনে যারা কাজ করতে চান তারা অবশ্যই এই বিষয়গুলো জেনে নিন দ্রুত

বানিজ্য মেলা কিন্তু ২ যায়গায় হয়। একটা হয় ঢাকায় এবং অন্যটা হয় চিটাগং -এ। তবে এ কথা বলার অপেক্ষা রাখেনা যে, ঢাকার বানিজ্য মেলা সবচেয় আকর্ষনীয় এবং জমজমাট হয়ে থাকে। যারা চিটাগং থাকেন তাদের কে চিটাগং এর বানিজ্য মেলার জন্যই ট্রাই করা দরকার। কারন স্থানীয় হলে কাজ করতে এবং কাজ পেতে সুবিধা হয়।

চিটাগং বানিজ্য মেলার সংক্ষিপ্ত রুপ হল সি আই টি এফ, ইংরেজিতে CITF, মানে হচ্ছে চিটাগং ইন্টারন্যশনার ট্রেড ফেয়ার। অন্যদিকে ঢাকায় যে বানিজ্য মেলা হয় তার সংক্ষিপ্ত রুপ ডি আই টি এফ, ইংরেজিতে DITF, যার মানে হচ্ছে ঢাকা ইন্টারন্যশনাল ট্রেড ফেয়ার।

বানিজ্য মেলা প্রতি বছর ১ বার কারে হয়। নরমালি বানিজ্য মেলার ১ মাস বা ৩০ দিনের হয়ে থাকে। মাঝে মাঝে ৩০ দিন কম্পিট হবার পরেও পাবলিক ডিমান্ড এর উপর ভিত্তি করে ৫ থেকে ১০ দিন পর্যন্ত সময় বাড়ানো হয়ে থাকে।

সাধারনত ঢাকার বানিজ্য মেলা আগে হয়। তারপর পরই চিটাগং এর বানিজ্য মেলা শুরু হয়ে থাকে। আগে পরে যাই হোক না কেন এবং ঢাকায় কিংবা চিটাগং যেখানেই হোক না কেন বানিজ্য মেলার ক্রেজ কিন্তু একটু ও কম থাকেনা কোথাও। শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত লোকে লোকারন্য থাকে বানিজ্য মেলার ৩০ থেকে ৪০ টি দিন। হাজার কোটি টাকার বিজনেস হয় প্রতি বছর প্রতিটি বানিজ্য মেলাতে।

বানিজ্য মেলায় কাজ করতে পারা অসম্ভব দারুন এক অভিজ্ঞতা। আপনি যদি কোন শপে কাজ করেন তাহলে মনে করে সকাল ১০ টার মধ্যে সেজেগুজে আপনাকে হাজির থাকতে হবে স্টল গুলোতে। তারপর হাসি ঠাট্টা মজায় মজায় কেটে যাবে সারাটি দিন, আপনি টের ও পাবেন না যে, কখন কোন দিক দিয়ে আপনার দিনটি কেটে গেল।

সারাদিন নানা ধরনের কাস্টমার আসবে। তাদের সাথে কথা বলে, তাদের কে কনভিন্স করার মধ্যে এক ধরনের অন্য রকমের আনন্দে আপনার মনটা ভরে থাকবে সারাটি সময়। দিন শেষে যখন আপনি বাড়ি ফিরবেন তখন হয়তো বা ক্লান্তি থাকবে এটা ঠিক কিন্তু তার চেয়ে বেশি যেটা থাকবে সেটা হচ্ছে প্রশান্তি। আপনি এই ১ টি মাস এক ধরনের স্বপ্নের জগতে প্রবেশ করবেন। আর এই স্বপ্নের ঘোর আপনার চোখে মুখে লেগে থাকবে সারাটি বছর।

তাই আপনি যেই হোন না কেন, প্রত্যেকেরই একবার হলেও জীবনে ১ বার বানিজ্য মেলায় চাকরি করা উচিত। এটা আপনার পরবর্তী জীবন কে এমন দারুন ভাবে গুছিয়ে রাখবে যে, আপনি প্রায় পরবর্তী জীবনে প্রায়ই আপনার এই বানিজ্য মেলার কাজ করার অভিজ্ঞতার গল্প করতেই থাকবেন আজীবন।

বানিজ্য মেলায় কাজ করলে আপনার কনফিডেন্ট লেভেন এতটাই স্ট্রং হবে যে, আপনার প্রফেশনাল লাইফ মাখনের মত স্মুদ হয়ে যাবে। লাইফের প্রতিটা কাজকে সহজ এবং সরল মনে হবে। কারন বানিজ্য মেলার ৩০ দিনে আপনি যে প্রশিক্ষন পাবেন তা যত চেস্টাই করুন না কেন অন্য কোন কাজ করে এচিভ করতে পারবেন না।

তাই আবারো বলছি, ছাত্র জিবনে যারা আছেন এবং যারা প্রফেশনে আছেন বা প্রফেশনে ঢুকার চেস্টা করছেন, অথবা যারা চাকরির চেস্টা করছেন তারা সবাই ১ বার হলেও বানিজ্য মেলায় কাজের অভিজ্ঞতা টা অর্জন করুন। সরকারি বেসরকারি যেকোন চাকরি যারা খুজছেন এবং যারা শিউর যে বড় কোন চাকরি পেয়েই যাবেন, তারাও চেস্টা করুন বানিজ্য মেলায় একবার কাজ করে তারপর অন্য প্রফেশনে ঢুকার। কারন অভিজ্ঞতা অর্জন থেকে শুরু করে নিজের টলমলে মনকে স্ট্রং আর যে কোন কাজের জন্য উপযোগি করে তোলার জন্য বানিজ্য মেলায় কাজের কোন বিকল্প নেই।

আর, এখানে যে আপনি বিনা পয়সায় কাজ করবেন তাও কিন্তু নয়। এখানে কাজের জন্য বেশ মোটা অংকের সেলারি পাওয়া যায়। সেলারির পরিমান ৩০ দিনে প্রায়ই ৩০ হাজার টাকা পর্যন্ত দেয়া হয়ে থাকে। তবে দোকান ভেদে বেতন ব্যপক উঠানামা করে থাকে। কিছু কিছু দোকানে ৮০০০ থেকে ১৫০০০ পর্যন্ত ফিক্সড সেলারি দেয়া হয়। আবার কিছু কিছু শপে পারডে প্রায় ১০০০ টাকা ভিত্তিতেও কাজের ব্যবস্থা থাকে। তবে বেতন যাই হোক না কেন, আপনি যে আনন্দ আর অভিজ্ঞতা টা পাবেন সেটার মুল্য আপনি অর্থ দিয়ে মুল্যায়ন করতেই পারবেন না। কারন এই অসাধারন অভিজ্ঞতাই আপনাকে আরো হাজার হাজার টাকা কামানোর সকল পথ সুগম করে দিবে এ ব্যপারে নিশ্চিত থাকতে পারেন।

বানিজ্য মেলার চাকরির বিজ্ঞপ্তি এমাসের শেষের দিক থেকেই দিতে পারবো বলে আশাকরি। যদি নাও প্রকাশ হয় তবে আগামি মাসে হবার সম্ভাবনা আছে। তবে এ মাস বা আগামি বা যখনি বানিজ্য মেলার সার্কুলার হোক না কেন সবার আগে আপনি পাবেন আমাদের এই জব সাইটেই। এছাড়া এই সাইটের ফেসবুক পেজেও পাবেন নিয়মিত বানিজ্য মেলার সার্কুলার সবার আগে এ ব্যাপারে নিশ্চিত থাকতে পারেন। আমাদের আগে আর কোথাও আপনি বানিজ্য মেলার সার্কুলার খুজে পাবেন বলে আমরা মনে করিনা। কারন বানিজ্য মেলার সকল সার্কুলার সবার আগে এই সাইটে প্রকাশ করে থাকি আমরা এবং এই সাইটে প্রকাশ পাবার পরই আমাদের ফেসবুক পেজে প্রকাশ করে থাকি। সো, যদি নিয়মিত খোজ রাখেন, তাহলে পেয়ে যাবে অবশ্যই বানিজ্য মেলার সার্কুলারগুলো এবং পেয়ে যাবেন ইনশাআল্লাহ একটি বানিজ্য মেলার জব। দোয়া রইলো আপনার জন্য।

তবে, বানিজ্য মেলার মতই কিছু সার্কুলারের লিংক নিচে দিলাম সেগুলো চেক করে দেখুন। দেখে এপ্লাই করে জয়েন করে ফেলুন দ্রুত। কারন আপনি দেরি করলে অন্যের ভাগ্যে চলে যেতে পারে আপনার জন্য অপেক্ষা করে থাকা নিচের সহজ চাকরি গুলো।

আড়ং স্বপ্ন আগুরা জব HSC/ SSC/ ডিগ্রি পাসেই ৩৫০০০ বেতন পর্যন্ত সেলারি

যমুনা ফিউচার পার্কের বিভিন্ন দোকানে ২২০০০ বেতনে যেকোন শিক্ষাতে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি

সরাসরি নিয়োগ সিস্টেমে /গভঃমেন্ট জব/ – কৃষি অফিসে (BKGet)/ – SSC পাস – বেতন ৮২৫০ – ২০০১০ পর্যন্ত