ট্রেইনি পদেই ২৮৩৭০ টাকা বেতনে জব দিচ্ছে IFIC ব্যাংক – বছর শেষে বেতনে বেড়ে ৩৫৯৯০ টাকা হবে

জয়েনিং এর পর থেকে বেতন পাবেন ২৮৩৭০ টাকা করে। যেহেতু এটি ট্রেইনি পদ তাই ১ বছর ট্রেইনি পদে থাকতে হবে। ট্রেইনি পদ মানে হচ্ছে পদের জন্য উপযুক্ত করনের লক্ষে ট্রেইনিং এর মত করে কাজ করা। ট্রেইনি পদে থাকাকালিন বেতন বেতন কিছুটা কম থাকে সব অফিসেই। ট্রেইনি পিরিয়ড শেষ হলেই বেতন বেড়ে যায়।

আই এফ আই সি ব্যাংকের এই ট্রেইনি পদেও যদি আপনি জয়েনিং পেয়ে যান তাহলে ১ বছর ট্রেইনি হিসেবে আপনাকে কাজ করতে হবে। কিন্তু ফ্রিতে কাজ করতে হবে তা কিন্তু নয়। এই পুরো ১ বছরের ট্রেইনি পিরিয়ডে আপনি পাবেন ২৮ হাজার ৩ শত ৭০ টাকা মাসিক বেতন।

ট্রেইনি কালিন সময়কে প্রবেশন ও বলা হয়ে থাকে। মানে হচ্ছে, ট্রেইনি মানেই প্রবেশন পিরিয়ড। প্রবেশন মানে হচ্ছে শিক্ষানবিশ বা পরীক্ষাকাল। এই প্রবেশন পিরিয়ড যদি আপনি সাক্সেসফুল্লি কমপ্লিট করতে পারেন তাহলে আপনার বেতন হয়ে দাঁড়াবে ৩৫ হাজার ৯ শত ৯০ টাকা। এবং সাথে সাথে আপনার পদবি রেংকিং ও কিছুটা চেঞ্জ হয়ে যাবে।

যেমন ধরা যাক, আই এফ আই সি ব্যাংকের এই পদের ক্ষেত্রে পদের গ্রেড বা র‍্যাংক হচ্ছে ট্রেইনি এবন পদের নাম হচ্ছে ট্রেইনি এসিস্টেন্ট অফিসার বা সংক্ষেপে টিএসও। যখন আপনি ১ বছরের ট্রেইনি বা প্রবেশন পিরিয়ড পার করবেন তখন আপনার পদবীর নাম পরিবর্তন হয়ে রুপান্তরিত হবে। এবং সেই রুপান্তরিত পদের নাম হবে এসিস্টেন্ট অফিসার। শুধু তাই নয়, প্রবেশন শেষ হবার পর পদবী চেঞ্জ হবার পরেই আপনি ব্যাংকের রেগুলার সার্ভিসে প্রবেশ করবেন।

উল্লেখ আছে যে, এই চাকরির জন্য এপ্লাই করতে হবে আপনার বয়স ৩০ এর মধ্যে হতে হবে এবং সাথে সাথে বাংলাদেশের যে কোন স্থানে কাজ করার জন্য রেডি থাকতে হবে।

শিক্ষার ক্ষেত্রে কোন ক্লাশেই থার্ড ক্লাস বা থার্ড ডিভিশন বা সমমানের জিপিএ থাকা যাবেন। এপ্লিকেশন জমা দেবার লাস্ট ডেট অক্টোবরের ৩০ তারিখ। এপ্লাই করা যাবে সার্কুলারে উল্লেখিত নির্ধারিত আই এফ আই সি ব্যাংকের জব লিস্টিং সাইট লিংক থেকে।

এছাড়া মুল সার্কুলারে আরো অনেক গুরুত্ব তথ্য দেখে তারপর এপ্লাই করবেন এবং সকল নিয়ম মেনে দরখাস্ত জমা দেবার চেষ্টা করবেন।

এখানে ক্লিক করেই মুল সার্কুলারটি দেখেন নেয়া যাচ্ছে।