সাইকেল চালাতে জানলে ১০০০০ টাকা বেতন ও ১০০০ টাকা সাইকেল এলাউন্স সাথে প্রতিদিন উপরি আয়

এই চাকরির সবচেয়ে বড় শর্ত হল বাই সাইকেল থাকতে হবে নিজের এবং বাই সাইকেল চালনা জানতে হবে। আরো শর্ত হল আপনাকে অবশ্যই ঢাকাতে অবস্থান করতে হবে। ঢাকার বাইরে থাকলে তাকে আবেদন করতে নিষেধ করা হয়েছে। সো, ঢাকার বাইরে থাকা অবস্থায় আবেদন না করাই ভাল।

দ্বিতীয় যে প্রশ্ন মনে আসতে পারে সেটি হল এটি কি ফুল টাইম জব নাকি পার্ট টাইম জব? – জবাব হল এটি একটি ফুল টাইম জব এবং মুল ডিউটি ৮ ঘন্টা। মুল ডিউটি বললাম এই কারনে যে, আপনি মুল ডিউটির ৮ ঘন্টা কাজ শেষ করার পর বাড়তি কাজ করতে পারবেন। অর্থ্যাত অভারটাইম কাজের সুযোগ আছে। এবং বলাই বাহুল্য যে, বাড়তি অভারটাইম কাজ করলে অবশ্যই বাড়তি কাজের বা অভারটাইম কাজের বাড়তি টাকা পাবেন।

এরকম কাজের ক্ষেত্রে বাড়তি অভারটাইম করে ডেইলি ৫০০ থেকে ১০০০ টাকা পর্যন্ত বাড়তি ইনকাম করা যায়। আমার পরিচিত একজন এই টাইপের কাজ করে অন্য একটা প্রতিষ্ঠানে এবং সে প্রতিদিন মিনিমাম ৩০০ টাকার বাড়তি কাজ করে থাকে বলে আমাকে জানিয়েছে এবং সে নাকি একদিন ১১৭০ টাকা বাড়তি আয় করেছিল।

যাইহোক, বাড়তি কাজের সুযোগ যেহেতু আছে সেহেতু এটা এই জবে খুব ভাল একটা দিক।

শিক্ষাগত যোগ্যতা কি লাগবে সে ব্যপারে উল্লেখ আছে যে, এস এস সি বা এইস এস সি পাস হলেই আবেদন করা যাবে। এই চাকরির মোট খালি পদের সংখ্যা ১০ টি এবং আবেদন করা যাবে অক্টোবরের ২২ তারিখ পর্যন্ত।

এবার আসা যাক বেতনে কথায়। মুল বেতন ১০ হাজার টাকা। এর সাথে সাইকে এলাউন্স দেয়া হবে ১ হাজার টাকা। এই হল টোটাল ১১ হাজার টাকা। এখন আপনি যদি বাড়তি কাজ করে কোন মতে ৭০০০ টাকার মত বাড়তি টাকা ইনকাম করতে পারেন তাহলে ২০ হাজার টাকা হবে আপনার টোটাল মান্থলি টাকা।

ও, আরো একটি ইম্পর্টেন্ট জিনিস শেয়ার করা দরকার। আর তা হল আপনার একটি নিজস্ব স্মার্টফোন থাকতে হবে। স্মার্ট ফোন না থাকলে আবেদন করতে নিষেধ করা হয়েছে। (সম্ভবত ট্রেকিং এর জন্য স্মার্ট ফোন দরকার, অন্য কাজের জন্য হতে পারে)

এপ্লাই করতে চাইলে এখানে ক্লিক করে বিজ্ঞপ্তিটি পুর্নাংগ চিত্র দেখে দরখাস্ত জমা করে দিন