SSC/ HSC/ ডিগ্রী পাশেই ১৫০০০ – ২৫০০০ টাকা বেতন এবং ঈদ বোনাস সহ জয়েন করুন Walton – এ

বাংলাদেশের বড় বড় প্রতিষ্ঠানের ওয়ালটন অন্যতম। এদের আছে চাকরির বিশাল ক্ষেত্র। শুধুমাত্রে ওয়ালটনের প্লাজা গুলোতেই কাজ করে হাজার হাজার কর্মী। আবার মেইন যে অফিস আছে সেখানেও নানা পদের বিপরীতে আছে হাজার হাজার শুন্য পদ।

ওয়লটনে কাজের কোন শেষ নেই। এদের চাকরির বিজ্ঞপ্তি মোটা মোটি বছরের প্রায় সব সময়ই থেকে থাকে। ফলে চাকরি প্রার্থী যারা তাদের জন্য এখানে বছরের সারা বছরই চাকরির জন্য এপ্লিকেশন জমা দেবার উপায় থেকেই থাকে। অন্যান্য অফিসে চাকরির ক্ষেত্রে দেখা যায় যে, বছরের নির্দিষ্ট কোন সময়ে ১ টা কি ২ টা চাকরির সার্কুলার ছাড়া হয়। আবার কিছু কিছু প্রতিষ্ঠান আছে যারা ৫ বা ৬ বছর পর পর সার্কুলার প্রকাশ করে থেকে থাকে। এই যে সার্কুলার সারাবছর ধরেই থাকা এটার একটা পজিটিভ দিক আছে। আপনার মনে প্রশ্ন জাগতে পারে যে, বেশি বেশি সার্কুলার সারা বছর ধরে একই কোম্পানির থাকলে লাভ কি। আপনার এই প্রশ্নটা মনে আসবে বলেই আমি এই টপিক টি নিয়ে একটু বিস্তর কথা বলার চেস্টা করছি।

ধরুন একটা কোম্পানির সার্কুলার বছরে ১ বার হয়। সেক্ষেত্রে আপনি হয়তো অপেক্ষা করে বসে ছিলেন, সেই সার্কুলার আসলে এপ্লাই করবেন এবং সেই চাকরি পাবার জন্য যা যা করনীয় যেমন হালকা পাতলা পড়াশোনা এবং একটু সময় নিয়ে ভাল করে সিভি জমা দেয়া ইত্যাদি করবেন। কিন্তু সারা বছর বসে থাকার ফলে আপনার সকল চিন্তা ভাবনায় জং ধরে যায়। ফলে দেখা যায় সার্কুলারে উল্লেখিত লাস্ট ডেটের ঠিক আগের দিন আপনি এপ্লাই করতে বসেন এবং এমন তাড়াহুরা করে এপ্লাই করেন যে, সিভি তে অনেক ভুল রয়ে যায়। আর যদি সেই চাকরির জন্য কিছু পড়াশোনার দরকার পড়ে তাহলে আপনি কি করেন, কিছুই করেন না। পরীক্ষা যদি দিতে হয়, আপনি জাস্ট হলে গিয়ে পরীক্ষা দিয়ে চলে আসেন। পরীক্ষা শেষে হা হুতাশ করতে থাকেন যে, ইশ যদি সারা বছর পড়তাম তাহলে ফাটিয়ে দিতাম। আবার এমনও বলেন যে, ইশ যদি আরেকবার পরীক্ষাটা দিতে পারতাম কাল পরশুর মধ্যেই তাহলে ফাটিয়ে দিতাম

তার মানে কি দাড়াচ্ছে? মানে দাড়াচ্ছে এটাই যে, সকল চাকরি পাবার জন্য একটা প্রিপারেশনের দরকার পরে। এবং সেই প্রিপারেশন যে নিতে হবে সেতা বোঝা যায় ১ বার পরীক্ষা বা ভাইবা দেবার পরে। সুতরার, ওয়ালটনের এই যে, সারা বছরই সার্কুলার থাকে তাতে কি হয়, তাতে আপনি ধরুন আজকে একটা পরীক্ষা দিলেন এবং খারাপ করলেন এবং তারপর আপনি চিন্তা করতে পারবেন সাথে সাথেই যে, আবার দুইদিন পর এপ্লাই করে দারুন প্রিপারেশন নিয়ে পরীক্ষা দিবো তখন দেখবো আমাকে কে ঠেকায়। এই সুযোগ শুধু এই ওয়ালটনেই সম্ভব। কারন এখানে সারা বছর আপনি পরীক্ষা দিয়ে দিয়ে নিজেকে প্রিপেয়ার্ড করে তুলতে পারবেন এবং আলটিমেটলি আপনি আপনার পছন্দের একটি ওয়াল্টনের চাকরিও পেয়ে যাবেন।

ওয়ালটনের আজকে সার্কুলার লিস্ট এখানে ক্লিক করেই দেখে নেয়া যাচ্ছে।

যেহেতু ওয়ালটন অনেক বড় একটি প্রতিষ্ঠান তাই এখানে লোক সংকট লেগেই থাকে। আর এই সংকট নিরশনে এই অফিসের নিয়োগের বিজ্ঞপ্তির অভাব পড়েনা কখনো।

এপ্লাই করে জয়েন করে ফেলুন। দোয়া রইলো। আল্লাহ হাফেজ।