এই বক্সে Apply Now লিখে খুজতে হবে নইলে পাবেন না

শপ্নের ৯ টি শপে ৯২ জন্য সেলস পার্সন ৯৯৯২ বেতনে জয়েনিং ১৫ টি কারন সহ - 15 reason why you should work in a super shop

 সুপার শপে কাজের এক বিশাল ক্ষেত্র আছে ঢাকাতে।

 যারা সুপার শপের কাজ করতে চান তাদের জন্য শপ্নের মত হয়ে গিয়েছে এই কাজগুলো

কারন কি? সুপার শপে কাজের এত ক্রেজ হবার মুল কারন কি?

কারন১ঃ সুপার শপে কাজ পাওয়া খুব সহজ

কারন২ঃ বেশ ভাল সেলারি দিয়ে থাকে

কারন৩ঃ ফ্রিলি কাজ করা যায়

কারন৪ঃ এখন সুপার শপগুলো বেশ স্ট্রং ফলে শপ বন্ধ হয়ে কাজ চলে যাবার কোন চান্স নেই

কারন৫ঃ সুপার শপে আপনার বাড়ির আশেপাশেই আছে ফলে ইজিলি বাসা থেকে ১ মিনিটে হেটে গিয়ে কাজ শুরু করতে পারেন এবং ইজিলি যেকোন সময় বাসায় ফিরে আসতে পারেন

কারন৬ঃ সুপার শপে এখন অনেক ব্রাঞ্চেই খাবার দেয়া হয় ফ্রি

কারন৭ঃ ঈদ বোনাস এখন দেয়া হয় কারন সুপার শপগুলো এখন বেশ স্বাবলম্বী

কারন৮ঃ নিজের মত করে স্বাধীন মন নিয়ে কাজ করা যায়

কারন৯ঃ এখন যারা সুপার শপে কাজ করে তাদের সামাজিক মুল্য আগের চেয়ে অনেক বেশি

কারন১০ঃ প্রতিটি সুপার শপ এসিতে ঠান্ডা করা থাকে ফলে অন্যান্য দোকানের মত গরমের কষ্ট নেই

কারন১১ঃ যেহেতু এসির মধ্যে কাজ তাই পরিশ্রম বেশি করা লাগলেও ক্লান্তি এত বেশি থাকেনা

কারন১২ঃ ইদানিং সুপার শপের সেলসের লোকেরা কাস্টমারের সাথে মিসবিহেভ করলেও কাস্টমার কিছুই বলতে পারেনা, কারন কাস্টমারগন সেলসের লোকদের সামাজিকভাবে গুরুত্বপুর্ন মানুষ মনে করতে শুরু করেছে।

কারন১৩ঃ কিছু কিছ সুপার শপে যাতায়াতের ব্যাবস্থা আছে

কারন১৪ঃ সুপার শপে কাজ করলে নিজের বাসার জন্য কিছু কিনতে অন্য দোকানে যাবার দরকার পড়েনা

কারন১৫ঃ সুপার শপের কর্মিরা ইদানিং যে শপে কাজ করে সেই শপকে নিজের আপন শপ মনে করে ফলে কেউ জিজ্ঞেস করলে বলে যে, আমার সুপার শপ। যদিও এটা হাস্যকর শুনাচ্ছে তবুও এটা বলে অনেকের কাছেই স্পেশাল ক্রেডিট পাওয়া যায়।

এখানে ক্লিক করে সেলসে জয়েন করতে পারবেন ৭ দিনের মধ্যে

Comments

Post a Comment

প্রশ্ন থাকলে লিখুন

ফুল টাইম কিন্তু অকল্পনীয় সহজ জবগুলো